নির্বিক ডট কমে প্রশ্ন করে বিনামূল্যে উত্তর জেনে নিতে পারেন।প্রশ্ন করতে এখনই নিবন্ধন করুন।
104 বার প্রদর্শিত
09 ডিসেম্বর 2017 "ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (5,182 পয়েন্ট)
17 জুলাই 2018 বিভাগ পূনঃনির্ধারিত করেছেন
নাস্তিক্যবাদ সম্পর্কে জানতে চাই

4 উত্তর

+2 টি ভোট
15 এপ্রিল 2018 উত্তর প্রদান করেছেন (1,491 পয়েন্ট)
25 মে 2018 নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর
নাস্তিকতা বা এথিজম হল স্রষ্টার অস্তিত্বহীনতা। তথা একথার বিশ্বাস করা যে, স্রষ্টা বলতে কিছু নেই। আসমান, জমিন, গ্রহ-তারা সবই এমনিতেই প্রাকৃতিকভাবে সৃষ্টি হয়েছে। এগুলোর কোন স্রষ্টা নেই। এক কথায় স্রষ্টার অস্তিত্বহীনতার বিশ্বাসের নাম নাস্তিক্যতা।
নাস্তিকতার অর্থ কাফের। কারণ কাফের হওয়ার জন্য দ্বীন ইসলামের যে কোন একটি আবশ্যকীয় বিষয় অস্বিকার করলেই হয়। আর সেখানে নাস্তিক সেতো কোন কিছুই মানে না, তাই সে যে কাফের এটা বলার অপেক্ষা রাখে না। এক কথায় বলা যায় যে নাস্তিক সে কাফের, কিন্তু যে কাফের সে নাস্তিক নয়।
কুরআন ও হাদীসে এ ব্যাপারে কড়া ভাবে বলা আছে
ﻳَﺎ ﺃَﻳُّﻬَﺎ ﺍﻟَّﺬِﻳﻦَ ﺁﻣَﻨُﻮﺍ ﺇِﺫَﺍ ﺿَﺮَﺑْﺘُﻢْ ﻓِﻲ ﺳَﺒِﻴﻞِ ﺍﻟﻠَّﻪِ ﻓَﺘَﺒَﻴَّﻨُﻮﺍ ﻭَﻟَﺎ ﺗَﻘُﻮﻟُﻮﺍ ﻟِﻤَﻦْ ﺃَﻟْﻘَﻰٰ ﺇِﻟَﻴْﻜُﻢُ ﺍﻟﺴَّﻠَﺎﻡَ ﻟَﺴْﺖَ ﻣُﺆْﻣِﻨًﺎ ﺗَﺒْﺘَﻐُﻮﻥَ ﻋَﺮَﺽَ ﺍﻟْﺤَﻴَﺎﺓِ ﺍﻟﺪُّﻧْﻴَﺎ ﻓَﻌِﻨْﺪَ ﺍﻟﻠَّﻪِ ﻣَﻐَﺎﻧِﻢُ ﻛَﺜِﻴﺮَﺓٌ ۚ ﻛَﺬَٰﻟِﻚَ ﻛُﻨْﺘُﻢْ ﻣِﻦْ ﻗَﺒْﻞُ ﻓَﻤَﻦَّ ﺍﻟﻠَّﻪُ ﻋَﻠَﻴْﻜُﻢْ ﻓَﺘَﺒَﻴَّﻨُﻮﺍ ۚ ﺇِﻥَّ ﺍﻟﻠَّﻪَ ﻛَﺎﻥَ ﺑِﻤَﺎ ﺗَﻌْﻤَﻠُﻮﻥَ ﺧَﺒِﻴﺮًﺍ ‏[ ٤ : ٩٤ ]
হে ঈমানদারগণ! তোমরা যখন আল্লাহর পথে সফর কর,তখন যাচাই করে নিও এবং যে,তোমাদেরকে সালাম করে তাকে বলো না যে, তুমি মুসলমান নও। তোমরা পার্থিব জীবনের সম্পদ অন্বেষণ কর,বস্তুতঃ আল্লাহর কাছে অনেক সম্পদ রয়েছে। তোমরা ও তো এমনি ছিলে ইতিপূর্বে; অতঃপর আল্লাহ তোমাদের প্রতি অনুগ্রহ করেছেন। অতএব, এখন অনুসন্ধান করে নিও। নিশ্চয় আল্লাহ তোমাদের কাজ কর্মের খবর রাখেন। (সূরা নিসা-৯৪)
হাদীসে রাসূল সাঃ যে ব্যক্তি কাফের না তাকে কাফের বললে, সেই কুফরী নিজের দিকে প্রত্যাবর্তন করে মর্মে কঠোর হুশিয়ারী উচ্চারণ করেছেন-
ﻋﻦ ﺃﺑﻲ ﺫﺭ ﺭﺿﻲ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻨﻪ ﺃﻧﻪ ﺳﻤﻊ ﺍﻟﻨﺒﻲ ﺻﻠﻰ ﺍﻟﻠﻪ ﻋﻠﻴﻪ ﻭ ﺳﻠﻢ ﻳﻘﻮﻝ ‏( ﻻ ﻳﺮﻣﻲ ﺭﺟﻞ ﺭﺟﻼ ﺑﺎﻟﻔﺴﻮﻕ ﻭﻻ ﻳﺮﻣﻴﻪ ﺑﺎﻟﻜﻔﺮ ﺇﻻ ﺍﺭﺗﺪﺕ ﻋﻠﻴﻪ ﺇﻥ ﻟﻢ ﻳﻜﻦ ﺻﺎﺣﺒﻪ ﻛﺬﻟﻚ )
হযরত আবু জর রাঃ থেকে বর্ণিত। রাসুল সাঃ বলেছেন যে, তোমাদের কেউ যদি কাউকে ফাসেক বলে, কিংবা কাফের বলে অথচ লোকটি এমন নয়,তাহলে তা যিনি বলেছেন তার দিকে ফিরে আসবে। {সহীহ বুখারী, হাদীস নং-৫৬৯৮}
+1 টি ভোট
03 জানুয়ারি 2018 উত্তর প্রদান করেছেন (167 পয়েন্ট)
নাস্তিক তারাই যারা বিশ্বাস করে না যে সৃষ্টকারী কেউ আছেন মানুষ এবং অন্যান্য প্রানীর।
তারা আল্লাহ মানে না, ভগবান মানে না,, যিশুকেও মানে না। তাদের জন্য সর্বশক্তিমান কেউ নাই। অর্থাৎ তাদের মতে সৃষ্টিকর্তার অস্তিত্ত নেই।
এটি শুধু মানুষের অন্ধ বিশ্বাস।
+1 টি ভোট
05 মার্চ 2018 উত্তর প্রদান করেছেন (45 পয়েন্ট)
যারা সৃষ্টাকে বিশ্বাস করে না তারাই নাস্তিক।আর  এটাকে সমর্থন করাই হলো নাস্তিক্যবাদ
15 এপ্রিল 2018 মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন (168 পয়েন্ট)
28 মার্চ স্থানান্তরিত করেছেন
ঈশ্বরকে যে বিশ্বাস করে না তাকে নাস্তিক বলে।
+1 টি ভোট
19 এপ্রিল 2018 উত্তর প্রদান করেছেন (43 পয়েন্ট)
নাস্তিক্যবাদ একটি দর্শনের নাম যাতে ঈশ্বর বা স্রষ্টার অস্তিত্বকে স্বীকার করা হয়না এবং সম্পূর্ণ ভৌত এবং প্রাকৃতিক উপায়ে প্রকৃতির ব্যাখ্যা দেয়া হয়। আস্তিক্যবাদ এর বর্জনকেই নাস্তিক্যবাদ বলা যায়। নাস্তিক্যবাদ বিশ্বাস নয় বরং অবিশ্বাস এবং যুক্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত। বিশ্বাসকে খণ্ডন নয় বরং বিশ্বাসের অনুপস্থিতিই এখানে মুখ্য।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
06 ফেব্রুয়ারি 2018 "ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md tushar (1,202 পয়েন্ট)
1 উত্তর
02 নভেম্বর 2018 "ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Asif Shadat (5,182 পয়েন্ট)
4 টি উত্তর
15 ফেব্রুয়ারি 2018 "ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Asif Shadat (5,182 পয়েন্ট)
1 উত্তর
18 জুন 2018 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Siddique (8,660 পয়েন্ট)
1 উত্তর
নির্বিক ডট কম এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।প্রশ্ন উত্তর করতে নিবন্ধন করুন।

20,092 টি প্রশ্ন

21,941 টি উত্তর

1,664 টি মন্তব্য

5,037 জন সদস্য

...