search
প্রবেশ
নির্বিক এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।প্রশ্ন উত্তর করতে এখনই নিবন্ধন করুন।
43 বার প্রদর্শিত
"পড়াশোনা" বিভাগে

2 উত্তর

2 টি ভোট

উপদেশমূলক গল্পঃ অহংকারের ফল। 


এক পালোয়ান মল্লযুদ্ধে খুব পারদর্শিতা অর্জন করেছিল। মল্লবিদ্যায় সে তিনশত ষাটটি কৌশল আয়ত্ব করেছিল। নিত্য নতুন কায়দায় সে কুস্তি লড়ত। কাজেই সে সময়ের কোন কুস্তিগীর তার সাথে মল্লযুদ্ধে জয়লাভ করতে পারতো না। তার বহু শিষ্য ছিল। তার মধ্যে একজন রুপ-গুণে ওস্তাদের অত্যন্ত প্রিয় পাত্র ছিলেন। দুরদর্শী ওস্তাদ তাকে তিনশত ঊণষাটটি কৌশল শেখান, একটা বিশেষ কৌশল শিখালেন না।
সেই যুবক শক্তি-সমর্থ্য ও কলা-কৌশলে অল্পদিনের ভিতরে এমন সুনাম অর্জন করল যে, সেই সময়ের কোন পালোয়ান তার সাথে মোকাবেলা করার সাহস পেতো না। যুগের শ্রেষ্ঠ কুস্তিগীর বলে স্বীকৃতি পাওয়ায় তার মনে অহংকার মাথা চাড়া দিয়ে উঠল। এমন কি, একদিন সে বাদশার সামনে গল্প দিয়ে বসলো যে, আমার ওস্তাদ যার কাছে আমি কুস্তি শিখেছি, শিক্ষাগুরু হিসাবে তিনি আমার চাইতে বড় ও সম্মানের পাত্র হতে পারেন বটে, কিন্তু শক্তি ও কলা-কৌশলে আমি তার চেয়ে কোন অংশে কম না।
বাদশার কাছে কথাটা যুক্তিহীন মনে হল। তখনি তিনি প্রতিযোগিতার আদেশ দিলেন। প্রতিযোগিতার জন্য একটি বিরাট মাঠ নির্বাচন করা হল। ওস্তাদ ও ছাত্রের প্রতিযোগিতা দেখার জন্য দেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গও সেই যুদ্ধ ময়দানে হাজির হল এবং প্রতিযোগিতা শুরু হল। ওস্তাদ জানতেন, যুবক শিষ্যের শারীরিক শক্তি তার চাইতেও বেশি। তাই তিনি তার শিষ্যকে নতুন কৌশলে আক্রমণ করলেন। সেই নিয়ম ছাত্রকে না জানিয়ে গোপন রেখেছিলেন। কাজেই সে নিরুপায় হয়ে পড়ল। ওস্তাদ তাকে দুই হাত ধরে মাথার উপর উঠিয়ে মাটিতে ফেলে দিলেন। ওস্তাদ বিজয়ের মুকুট জয় করে নিলেন।
বাদশাহ ওস্তাদকে মূল্যবান পুরস্কার দিলেন। এরপর ছাত্রের অহংকারের জন্য তিরষ্কার করে বললেন, তুমি একটা নির্বোধ ও বেয়াদব। তাই নিজের ওস্তাদের সাথে সমকক্ষতার দাবী করতে তোমার লজ্জা হয়নি। বোকার মতো লড়াই করেছিলে কিন্তু পরাজিত হলে।
ছাত্র বিনীতভাবে বলল হে বাদশা, ওস্তাদ গায়ের জোরে আমার সাথে পারতেন না। কিন্তু কি করব, কুস্তিবিদ্যার সকল কৌশল আমাকে শেখানো হয়নি। তিনি কিছু কৌশল গোপন রেখেছিলেন। আমার অজানা সেই কৌশল দিয়ে তিনি আজ জয়লাভ করলেন।
উত্তরে ওস্তাদ বললেন : হ্যাঁ বাবা, এই দিনের জন্যই তা যত্ন করে রেখেছিলাম। নইলে আজই তুমি আমার সুনাম বরবাদ করে দিতে।

উপদেশ: জ্ঞানীরা বলে গেছেন : বন্ধুকে ভালবেসে এত শক্তিশালী করোনা, যেন সে যদি কখনো শত্রুতা করে বসে, তবে তুমি পরাজিত হও ।

ধন্যবাদ, গল্পটি অসাধারণ !
0 টি ভোট
যেমন কর্ম, তেমন ফল । _______________________ ছেলে আর বাবা পাহাড়ে উপর দিয়ে হাঁটছে । হঠাৎ ছেলেটি পড়ে গিয়ে আঘাত পায় এবং চিৎকার করে বলে, আহহ! সে পাহাড়টির কোনো স্থানে কণ্ঠস্বরটির পুনরাবৃত্তি 'আহহ'! সে এটা শুনে বিস্মিত হয় । সে কৌতূহলী হয়ে জিজ্ঞেস করে, কে তুমি? এই একই কথা সে আবারও শুনতে পায় । তারপর চিৎকার করে বলে, আমি তোমার প্রশংসা করছি । সে একই উত্তর পেয়ে খুবই রাগন্বিত হয় এবং তাঁর বাবার দিকে তাকিয়ে বলে, এসব কী হচ্ছে, বাবা? বাবা বলেন, শোন, বাছা । তারপর বাবা চিৎকার করে বলে, তুমি একজন বীরপুরুষ । কণ্ঠস্বরটি এটি ফিরিয়ে দেয় । ছেলেটি অবাক হয়, কিন্তু বুঝতে পারে না । তখন বাবা ব্যাখা করেন, এটি হলো প্রতিধ্বনি, কিন্তু এটি জীবন । তুমি যা কিছু করো বা বলো এটি তোমাকে তাই ফিরিয়ে দিবে । তুমি যদি ভালোবাসা চাও, তাহলে তোমার হৃদয়ে ভালোবাসা সৃষ্ট করো । তুমি যদি তোমার দলে আরও বেশি দক্ষতা চাও, তাহলে তোমার নিজের দক্ষতা বৃদ্ধি করো । এ সম্পর্ক জীবনের জীবনের সকল ক্ষেত্রে, প্রত্যেকটি জিনিসের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য । জীবন তোমাকে প্রত্যেকটি জিনিস ফিরিয়ে দিবে, যা তুমি একে দেবে ।
সুতারাং, গল্পটির মূল শিক্ষা বা নিতীকথা হলো, যে যেমন কর্ম করবে, তেমনি ফল পাবে । অর্থাৎ ভালো কাজের ফল ভালো, আর মন্দ কাজের ফল খারাপ ।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর 20 বার প্রদর্শিত
1 উত্তর 47 বার প্রদর্শিত
47 বার প্রদর্শিত 6 দিন পূর্বে "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা MD RUP
3 টি উত্তর 65 বার প্রদর্শিত
65 বার প্রদর্শিত
আপনার পড়া এমন কিছু বইয়ের(গল্প, উপন্যাসের) নাম বলেন(লেখকের নামসহ) যেটা শেষ না করে উঠতেই মন চাইবেনা।
06 মার্চ "অন্যান্য" বিভাগে জিজ্ঞাসা Farhan Monsur
...