572 বার প্রদর্শিত
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন
এর দাম কত হবে সেটা অনির্ধারিত, এটা সাধারনত স্টক রেখে বিক্রি করা যায় না,যখন কেউ দান বা বিক্রি  (কত টাকা সেটা বিক্রেতার নিজের বিষয়)  করে তখন এই অপারেশন করা হয়।

শরীরের অঙ্গ প্রতঙ্গের কোন দাম হয় না, এগুলো কেনা বেচা সম্পুর্ন অবৈধ। কেউ দান করলেই সেটা ব্যবহার করা উচিৎ। আর ডাক্তার পরীক্ষা করে যদি বলে শুধু কিডনি লাগবে তাহলে কিডনি প্রতিস্থাপন করলে সেই রোগী স্বাভাবিক জীবন-যাপন করতে পারবে।

বাংলাদেশের এটি সম্পুর্ন বেআইনি!!!

ইসলামে হারাম। কিডনির মালিক বা কোন

অঙ্গের মালিক আপনি নন!!!!

কিডনি, চোখ ইত্যাদি অঙ্গের মালিক

আল্লাহরব্বুল আলামিন।

সুতরাং যে

জিনিসের মালিক আমরা না তা দান বা বিক্রি

করার অধিকার আমাদের নেই।

কেউ

যদি দান করে  বিক্রি তবে হাসরের মাঠে

তাকে

ঐ দান করা অঙ্গ ছাড়াই পুনরায় জিবীত

করা হবে। তাই ইসলামের দৃষ্টিতে জিবীত

অবস্থায় বা মরনত্তর অঙ্গদান ও বিক্রি করা।

যায়েজ নাই।

একটি কথা মনে রাখুন একটি মানুষ বেচে থাকে তার দুটো কিডনির উপর ভর করে। তাই কিডনি বিক্রয় করা থেকে বিরত থাকুন।আশা করি বুজতে পেরেছেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি উত্তর
01 এপ্রিল 2020 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Asif Shadat
1 উত্তর
18 ফেব্রুয়ারি 2019 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Asif Shadat
0 টি উত্তর
07 নভেম্বর 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Asif Shadat
1 উত্তর
14 মে 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন builderbd
1 উত্তর
1 উত্তর
12 সেপ্টেম্বর 2019 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন ফারহান
নির্বিক এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।
...