6,722 বার প্রদর্শিত
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন

2 উত্তর

+2 টি ভোট
করেছেন
ছানার উপকারিতা অনেক।ছানা খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে অনেকেই জানেন না।
ছানার পানিতে থাকে অনেক রকম পুষ্টিকর উপাদান। ছানার পানিকে তুলনা করা যায় অনেকটা ভাতের মাড়ের সঙ্গে। ভাত রান্নার পর ভাতের মাড়কে পুষ্টিকর জেনেও যেমন আমরা ফেলে দিই, তেমনি অবস্থা এই ছানার পনির। দুটিরই শেষ গন্তব্য নর্দমা। ভাবতে খারাপ লাগে যে পুষ্টিজ্ঞানের অভাবে ছানার পানির পুষ্টিকে আমরা কাজে লাগাতে পারি না। অথচ ছানার পানির রয়েছে পুষ্টি পূরণের ক্ষমতা। পুষ্টিবিজ্ঞানীদের কাছে ছানার পরিচয় কেজিন নামে একটি প্রোটিন হিসেবে। সাধারণের কাছে এটি পরিচিত সন্দেশ, রসগোল্লার মতো মিষ্টিজাতীয় খাবারের প্রধান উপকরণ হিসেবে।অন্যদিকে ছানার পানিতে থাকে অ্যালবুমিন, গ্লোবিউলিন নামক দুটি প্রোটিন; থাকে ল্যাকটোজ, শর্করা ও কিছু স্নেহজাতীয় পদার্থ। ছানা ও ছানার পানিতে যেসব খাদ্য উপাদান থাকে, দুধেও প্রায় একই উপাদান থাকার কথা।

ছানার পানিতে যে শুধু প্রোটিন থাকেই তা নয়, এর মধ্যে থাকে রিবোফ্লেভিন নামক ভিটামিন। এই ভিটামিনটি আমরা মুখে ঘা হলে গ্রহণ করে থাকি।

শরীর গঠনে ছানার পানির যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে। অথচ পুষ্টি জ্ঞানের অভাবে সেই ছানার পানিকে ঢেলে ফেলে দিচ্ছি ড্রেনে। এখন আপনিই বলুন ছানার পানি ফেলে দেওয়া কি ঠিক?
+1 টি ভোট
করেছেন
দুধের ছানা একটি অত্যন্ত পুষ্টিকর ও হেলদি খাবার, কারণ এতে আছে দরকারী ভিটামিন, মিনারেল, আমিষ ইত্যাদি। এটি দুগ্ধ যাত খাবার ও দুধের সমান পুষ্টিকর খাবার। এমনকি এটি দুধের চাইতেও বেশি পুষ্টিকর খাবার হিসাবে গণ্য করা হয়, কারণ দুধের চাইতে বেশি vitamin, যেমন: vitamin B complex, calcium, phosphoras ছানাতে পাওয়া যায়।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
25 সেপ্টেম্বর 2019 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Asif Shadat
1 উত্তর
15 ডিসেম্বর 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Asif Shadat
1 উত্তর
15 ডিসেম্বর 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Asif Shadat
1 উত্তর
1 উত্তর
0 টি উত্তর
নির্বিক এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।
...