search
প্রবেশ
নির্বিক এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।প্রশ্ন উত্তর করতে এখনই নিবন্ধন করুন।
68 বার প্রদর্শিত
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে

1 উত্তর

0 টি ভোট
বেশিরভাগ মানুষই ঘুম থেকে উঠে এক কাপ চা বা কফি না পেলে জিদ ঝাড়েন আসবাবপত্রের ওপর? অথচ খালি পেটে এমনিতেই অ্যাসিডের মাত্রা বেশি থাকে‚ তার ওপরে উলটো পালটা খেয়ে শরীরে আরো অ্যাসিডের পরিমাণ বাড়িয়ে তুলছেন না তো? জেনে রাখুন এমন পাঁচটা জিনিস যা খালি পেটে ভুলেও খাবেন না।

১. বিশেষ কিছু ওষুধ: ডাক্তাররা এই কারণেই বলে থাকেন এমন কিছু ওষুধ আছে যা খাবার খেয়ে খেতে হবে। বেশ কিছু অ্যান্টি বায়োটিক আছে যা ইনটেস্টাইন বা অন্ত্রের আস্তরণকে ইরিটেট করে। এবং অ্যাসিডের মাত্রাও অনেকটা বাড়িয়ে দেয়। এর ফলে পেটের আলসার হওয়ার আশঙ্কা অনেকটা বেড়ে যায়। এছাড়াও খালি পেটে অ্যাসিডের মাত্রা যেহেতু বেশি থাকে তাই অ্যান্টিবায়োটিক তাড়াতাড়ি অ্যাবসর্ব হয়ে যায় ফলে তাদের গুণ অনেক কমে যায়।

২. কফি: সকালে উঠে অনেকেই এক কাপ গরম কফি নিয়ে বসেন। কিন্তু এটা মোটেই ভালো স্বাভাব নয়। খালি পেটে কফি মারাত্মক হতে পারে। অ্যাসিডের মাত্র অনেকটা বাড়িয়ে দেয়া ছাড়াও হরমোনাল ইমব্যালেন্স হতে পারে। এর ফলে স্ট্রেস আর উদ্বেগের মাত্রা অনেকটা বেড়ে যায়।

৩. চা: কফির মতই খালি পেটে চা খেলে অ্যাসিডের মাত্রা বেড়ে যায়। এর ফলে অ্যাসিডিটি এবং পেটে আলসার হতে পারে।

৪. মশলাদার খাবার: সকালের নাস্তায় মশলাদার খাবার না খাওয়াই ভালো। মশলাদার খাবারে বেশি মাত্রায় মরিচ থাকে যা অন্ত্রের ক্ষতি করে। এর ফলে পেটে ব্যাথা এবং ক্র্যাম্প হতে পারে। পেটের আলসার হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়।

৫. এয়ারেটেড ড্রিঙ্কস: সোডা অত্যন্ত অ্যাসিডিক। এর ওপর যদি খালি পেটে কোল্ড ড্রিঙ্ক পান করেন, তাহলে অ্যাসিডের মাত্রা আরো বেড়ে যাবে। এরফলে পেটের ক্র্যাম্প বা গা বমি বমি হতে পারে।

সম্পর্কিত প্রশ্ন

1 উত্তর
খালি পেটে কোন খাবারগুলো খাওয়া উচিত নয়?
22 মার্চ 2019 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা Asif Shadat
1 উত্তর
আমি প্রত্যেকদিন সকালে খালি পেটে ১টা করে সেদ্ধ ডিম খেতে চাই।এভাবে খেলে শরীলের কি কি উপকারিতা বা অপকারিতা হবে জানতে চাই।
03 অক্টোবর 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা Abinashray