নিরভিকে ডট কমে আপনাকে স্বাগতম।এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন।প্রশ্ন করতে Ask a Question ক্লিক করুন।
2 like 1 dislike
19 views
asked in রূপচর্চা by (1,788 points)

Your answer

প্রশ্নটি ভালোভাবে বুঝে যাচাই করে গুছিয়ে উত্তর দিন। আপনি যতটুকু জানেন তার সর্বোচ্চটুকু দেয়ার চেষ্টা করুন যাতে প্রশ্নকর্তা সন্তুষ্ট হয়। আপনার একটি ভুল উত্তর/পরামর্শ অন্য সদস্যদের বিভ্রান্ত করতে পারে এবং সমস্যা আরও বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই উত্তর দেয়ার পূর্বে নিশ্চিত হয়ে নিন আপনার উত্তরটি তথ্যবহুল যুক্তিযুক্ত কি না।শুদ্ধ বানানে উত্তরটি লিখার চেষ্টা করুন।ধন্যবাদ।
Your name to display (optional):
Privacy: Your email address will only be used for sending these notifications.

3 Answers

0 like 0 dislike
answered by (1,788 points)
গরম মশলার একটি উপাদান লবঙ্গ। এটি ব্রণ দূর করার পাশাপাশি দূর করে ব্রণের দাগও। ব্রণের উপর লবঙ্গ বাটা ২০ থেকে ২৫ মিনিট লাগিয়ে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ব্রণের ক্ষত স্থানে দাগ হবে না। সপ্তাহে একবার লবঙ্গ বাটা ত্বকে লাগালে ত্বকে ব্রণ উঠবে না। এছাড়া, চন্দনের গুঁড়ার সঙ্গে লবঙ্গ বাটা লাগালে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর হয়।
0 like 0 dislike
answered by (252 points)
খুব ভালো একটা প্রশ্ন করেছেন।

মুখের দাগ দূর করার জন্য খুব ভালো প্রদ্ধতি মনে হয় এটায় যেটি আমি ব্যবহার করে সার্থক হয়েছি।

একটা সিরাপ খেতে হবে নাম" সাফি " টানা ৩ মাস খাওয়ার পর আপনি বুঝে যাবেন কি তফাৎ।

শুধু ব্রুন নয় আপনার মুখ ফর্সা হয়ে যাবে,মুখের যেকোনো দাগ মুছে যাবে।

এছাড়া এই সিরাপ যেকোনো আবস্থাতে খাওয়া যায়।

কোনো পার্শপ্রতিক্রিয়া ছাড়ায়।


আপনি ব্যবহার করতে পারেন।


বিদ্র: মুখে শুধু জনসন সাবান ব্যবহার করবেন।


শরীরের জন্য যেকোনো সাবান চলবে।

যেকোনো যায়গায় যাওয়ার আগে জনসন সাবান ব্যবহার করবেন।

আর কোনো ক্রিম ব্যবহার করতে হবে না।
এই সিরাপ দিনে ৩ বেলা খাওয়ার পর।
সিরাপ একটু তিতা।
আমার কথা যদি না বিশ্বাস করেন নিকটস্ত হোমিও এর দোকানে যান।

গিয়ে শুনুন এটার কাজ।


এটা সম্পূর্ণ আমি লিখছি ভাই,তাই তেমন গোছাতে পারি নাই।
0 like 0 dislike
answered by (163 points)
মুখের দাগ দূর করার উপায়-

পেঁয়াজ :
পেঁয়াজের কথা শুনে অবাক হচ্ছেন? অবাক হওয়ার কিছু নাই বয়স জনিত কালো ছোপ দূর করতে পেঁয়াজ দারুণ কার্যকরী। একটা স্লাইস নিয়ে আক্রান্ত স্থানে ঘষুন ৫ মিনিট। তারপর ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফল পেতে রোজ ব্যবহার করুন।

লেবু :
লেবু ত্বকের কালো দাগ ছোপ দূর করতে অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। তুলোর সাথে লেবুর রস নিন, তারপর কালো দাগে ৫ মিনিট ঘষে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে ৩/৪ বার ব্যবহারে উপকার পাবেন। তবে মুখে বা শরীরের কোথাও লেবু লাগাবার পর সরাসরি সূর্যের আলোতে যাবেন না।

পেঁপে :
পাকা পেঁপে কালো দাগ দূর করার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ আরেকটি উপাদান। পাকা এক টুকরো পেঁপে নিয়ে আক্রান্ত স্থানে ভালো করে ঘষুন। আধা ঘণ্টা রাখুন, তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে ৩/৪ বার করুন। পেঁপেতে থাকা প্যাপিন মরা কোষ দূর করে ত্বকের রঙ উজ্জ্বল করে তোলে।

অ্যালোভেরা :
শুধুমাত্র ব্রণ কমাতেই নয়, ত্বকের কালো দাগছোপ দূর করতেও অ্যালোভেরা অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান। অ্যালোভেরা জেল বের করে আক্রান্ত স্থানে মাখুন আলতো হাতে। এমন ভাবে ম্যাসাজ করুন যেন অ্যালোভেরা জেল ত্বক একদম শুষে নেয়। ঘণ্টা খানেক ত্বকে রাখার পর ধুয়ে ফেলতে পারেন।

কলা ও লেবুর মাস্ক :
পাকা কলা ও লেবু মিশিয়ে (একটা কলা ও একটা লেবু অনুপাতে) মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্ট মুখে, গলায়, হাতে, পায়ে যে কোনো জায়গায় ব্যবহার করতে পারেন। রোজ লাগান কালো দাগে, ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

দেখুন, নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক কতো মসৃন, সুন্দর ও লাবণ্যময় হয়েছে।
নিরবিক ডট কম একটি প্রশ্ন উত্তর সাইট। এটি এমন একটি প্লাটফরম যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন।আর আপনি যদি সবজান্তা হয়ে থাকেন তাহলে অন্যের প্রশ্নের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।
...