search
প্রবেশ
নির্বিক এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।
34 বার প্রদর্শিত

আমার ঘটনাটি গতবছরের। অর্থাৎ ২০২০ সালের। 

আমি গতবছর আমার মায়ের সাথে প্রধানমন্ত্রীর পিএসের সাথে দেখা করতে গিয়েছিলাম। আমাদের আর্থিক অনেক সমস্যা। সেটার সাহায্যের জন্য গিয়েছিলাম। 

আমি আমার মা সহ তিনদিন সেখানে গিয়েছিলাম। কিন্তু তিনদিন লাইনে দাঁড়িয়ে থাকার পরও আমরা দরখাস্ত জমা দিতে পারিনি। 

যেদিন আমি দরখাস্ত জমা দিতে যাবো সেদিন আমি একাই গিয়েছিলাম। দরখাস্ত জমা দিতে পেরেছিলাম সেদিন। 

তারপর ভাবলাম এইবার কোনো  কাজ হবে। কিন্তু কিছুতেই কিছু হচ্ছিলোনা। আমি পিএস স্যারের কাছে যাচ্ছিলাম। কিন্তু উনি কোনো উত্তর দিচ্ছিলেন না। আমি প্রায় হতাশ হয়ে পড়েছিলাম। 

হঠাৎ সেখানে একটা লোকের সাথে আমার পরিচয়। সেও এসেছিলো তার একটা সমস্যার সমাধানের জন্য। 

আমি তাকে আমার সব কথা খুলে বললাম। যদিও আমি লোকটাকে চিনতাম না। 

তখন আমার মাথা ঠিক ছিলোনা। আমি কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারিনি সে বছর। তাই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলাম। সেজন্য সেই লোককে আমি আমাদের পারিবারিক বিষয়ে খুলে বলেছিলাম। 

আমার মায়ের সাথে আমার বাবার সম্পর্ক ভালোনা। প্রায় তিন বছর আগে আমার মা আমার বাবাকে ডিভোর্স দেয়। ডিভোর্সের কারণ আমার বাবা আমাদের ভরণপোষণের দায়িত্ব নিতে পারছিলেন না। 

আমি কেন যেন এই সমস্ত কথা সেই লোকটিকে খুলে বলেছিলাম। যদিও আমার এটি করা ঠিক হয়নি। 

যাই হোক , সব শুনে লোকটি বললো সে আমাদের বাসায় যেতে চায়।  আমার মায়ের সাথে কথা না বলতে পারলে নাকি সে আমাদের উপকার করবেনা এই কথা বলে। 

আমি প্রথমে রাজি হতে চাইনি।  তারপর সে বললো আমাদের বাসায় গিয়ে নাকি সে আমার আম্মুর সাথে কথা বলবেন। তারপর নাকি আমাদের উপকার করবেন। 

আমিও রাজি হয়ে গেলাম। আমি না করতে পারিনি। বাসায় আসতে না দিলে যদি সে আমাদের উপকার করতে না চায় ?

আসলে তখন আমি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলাম তাই এইসব ভাবতাম। 

যাই হোক।  লোকটি আমাদের বাসায় আসলো। আমি মায়ের কাছে তাকে পিএসের লোক বলে পরিচয় দিলাম। কারণ আম্মু অপরিচিত লোকজন ঘরে আনা পছন্দ করেননা। আমি যদিও কাজটি ঠিক করিনি। 

সে আমার মাকে কথা দেয় যে সে আমাদের উপকার করবে। 

আমার দাঁতে একটা সমস্যা ছিল। আমি ছোটবেলায় খেলতে গিয়ে মুখে ব্যাথা পাই। যার কারণে আমার নিচের পাটির সামনের একটি দাঁতের অর্ধেক অংশ ভেঙে যায়। কোনো সমস্যা ছিলোনা। কিন্তু ঠান্ডা কিছু খেতে গেলে দাঁত শিরশির করতো। দাঁতটি কালো হয়ে গিয়েছিলো। আমার পরিবারের কেউ দাঁতটির দিকে খেয়াল করেনি। কিন্তু সেই লোকটি করেছিল। সে তার নিজের দশ হাজার টাকা দিয়ে আমার দাঁতের চিকিৎসা করিয়েছিলো। আমি খুশি হয়েছিলাম তার এইসব দেখে। 

যাই হোক , তারপরে আমি তাকে ভাইয়ের মতো দেখতে শুরু করি। কারণ আমার কোনো ভাই ছিলোনা। 

আমি তাকে একদিন বললাম আমার মোবাইল ফোনে সমস্যা। এই কথা শুনে সে একদিন আমাকে নতুন ফোন উপহার  দেয়।  আমি খুশি হয়েছিলাম উপহার পেয়ে। 

তারপর থেকে সে আমাকে প্রতিদিন ফোন দিতো। কিন্তু মাঝে মাঝে আমি তার ফোন ধরতে পারতাম না.

একদিন সে আমাকে বললো সে নাকি আমাদের বাসায় আসতে চায়। সামনে লক ডাউন সেজন্য নাকি আমাদের সাহায্য করতে চায়। আমিও আর মানা করিনি। 

কিন্তু আমাদের বাসায় আসার পর তার চেহারা বদলে গেলো। সে আমার কাছ থেকে তার উপহার দেয়া মোবাইল ফোন ফেরত নিতে চাইলো। কারণ হিসেবে বললো , সে ফোনের IMEI নাম্বার চেঞ্জ করবে। চেঞ্জ করার পর আমাকে আবার ফেরত দিবে। কিন্তু আজ পর্যন্ত সে আমাকে আর মোবাইল ফোনটা ফেরত দেয়নি। আমি আর সেটা চাইনা। 

শুধু তাইনা , সে সেদিন আমার মাকে তিন হাজার টাকা দিতে চেয়েছিলো। কিন্তু আমার মা সেটি গ্রহণ করেনি। 

আমার মা জানতোনা যে ওই লোক আমার দাঁতের চিকিৎসা করিয়েছে। কিন্তু সেদিন ওই লোক আমার মায়ের কাছে এইসব বলে দিয়েছিলো। 

সব শুনে আমার আম্মুর মাথা গরম হয়ে গেলো। কেন আমি অপরিচিত একজন লোকের সাথে ডক্টরের কাছে গেলাম সেটি নিয়ে উনি আমাকে বকতে শুরু করলেন। 

এইদিকে ওই লোক আরেক নাটক শুরু করলো। মোবাইল আমার কাছ থেকে ফেরত নেয়ার পর সে বলতে শুরু করলো আমি নাকি তার ফোন দিয়ে পর্ণ দেখেছি। আমি তার কাছ থেকে প্রমান চেয়েছি। কিন্তু সে কোনো প্রমান দেখতে পারেনি।  সে উল্টো আমাকে ব্ল্যাকমেল করতে শুরু করলো। সে নাকি আমার মামাকে সব বলে দিবে। তখন সে জানতো আমি যে তার ফোন দিয়ে আমার  সাথে কথা বলতাম। 

আমি সব শুনে কান্না শুরু করলাম। 

আমি পুরো ঘটনা আমার খালার কাছে শেয়ার করি। উনি একজন উকিল।  সব শুনে আমার খালা আমার পাশে এসে দাঁড়ান। 

এই হচ্ছে আমার পুরো ঘটনা। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে আমি এই ঘটনা আর মনে রাখতে চাইনা। স্বীকার করছি আমি ভুল করেছি। কিন্তু এই ঘটনা ভুলে যেতে চাই। কারণ সামনে আমি দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষা দেব। আমাকে পড়াশুনা করতে হবে। সব ভুলে গিয়ে সামনে আমার এগিয়ে যাওয়ার ইচ্ছে আছে। কারণ কোনো ছোটলোকের কাছে আমি হার মানতে চাইনা। 

কিন্তু আমার মা আমাকে এই ঘটনার জন্য খুব খারাপ কথা বলছে। আমি নাকি অপয়া , খারাপ মেয়ে। আমার থেকে নাকি রাস্তার মেয়েরা অনেক ভালো। বলতে গেলে এই একটা ঘটনা আমার জীবনটা অভিশপ্ত করে দিয়েছে। 

এখন আমি একটা ভালো উপায় আপনাদের কাছ থেকে আশা করছি। কি করলে আমি আমার এই স্মৃতি ভুলে যেতে পারবো ?
"সাধারণ" বিভাগে

এই প্রশ্নটির উত্তর দিতে দয়া করে প্রবেশ কিংবা নিবন্ধন করুন ।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
আমার সহ্য হয়না আর ভালো লাগচেনা আমার স্বামি প্রবাসে থাকে আমার ১বছরের মেয়ে আছে
02 মার্চ 2020 "নিত্যনতুন সমস্যা" বিভাগে জিজ্ঞাসা বিবি ফাতেমা
1 উত্তর
আমি রুনা।  আমার সমস্যা হচ্ছে আমি আমার পড়াশুনা নিয়ে খুব হতাশ।  আমি ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে হতাশ। আমার ঘটনাটির শুরু ২০১৯ সাল থেকে। সেবছর আমি এইচএসসি পাস করি। আমি সেবছর ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষা দেই খ  ইউনিটে। খ ইউনিটে আমি টিকে যাই। কিন্তু সিরিয়াল পিছনে পরে যায়। যার কারণে আমার বিষয় ... হয় যদিতারা কোনো ভাবে জানতে পারে আমি ঢাবির না তাহলে কি হবে ? সবকিছু মিলিয়ে আমি খুব দুশ্চিন্তার মধ্যে আছি। আমার এখন কি করণীয়?
03 এপ্রিল "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা runa islam
1 উত্তর
আমি গত দুই বছর যাবৎ অর্শ রোগে ভুগছি। এই রোগের চিকিৎসা কি?
04 মার্চ 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা Shadhin3622
2 টি উত্তর
আমার ঘন ঘন স্বপ্ন দোষ হয়।আমি এ থেকে রক্ষা পেতে চাই।এখন কি করব?
14 ডিসেম্বর 2017 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা Md tushar
1 উত্তর
কীভাবে নওদাবস দশম শ্রেণী ব্যচ ২০২০/২০২১ এই গ্রুপ টাকে এগিয়ে নিয়ে যাবো꫰এর সদস্য বেশি কি ভাবে করবো পিল্জ একটু বুঝিয়ে লেখুন
31 মে 2020 "মতামত" বিভাগে জিজ্ঞাসা Nazmul h