63 বার প্রদর্শিত
"ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন
বিভিন্ন হাদিসে দেখা যায় যে উক্ত দোয়া পড়লে বিনা হিসেবে জান্নাতে যাওয়া যাবে।যদি সত্যিই বিনা হিসেবে জান্নাতে যাওয়াই যায় তাহলে এত নেকির কাজ করে লাভ কী?

1 উত্তর

+1 টি ভোট
করেছেন
হাশরের মাঠ হল হিসাব নিকাশের মাঠ।হিসাব তো আল্লাহ নিবেনই।তাও আল্লাহ তায়ালা বলেছেন "হাশরের মাঠে যার হিসাব নেয়া হবে সে ধ্বংস হয়ে যাবে"।অতএব আমরা আল্লাহ তায়ালার এই পবিত্র বাণী থেকে বোঝা যায় যাদের হিসাব নেয়া হবে না তারা জান্নাতে যেতে পারবে।তাই আল্লাহ তায়ালা যাতে আমাদেরকে বিনা হিসেবে জান্নাতে যাওয়ার তৌফিক দান করে সেই দোয়া বেশি বেশি করা।আর আমাদের ভাগ্যে যেন আল্লাহর রাসূলের শাফায়াত নসীব হয় সেই দোয়া করা।আল্লাহ আমাদের বিনা হিসেবে জান্নাত লাভের তৌফিক দান করুন ,আমিন ।
করেছেন
যদি সত্যিই বিনা হিসেবে জান্নাতে যাওয়া যায় তাহলে মহানবি(সা.) আমাদের নেকীর কাজ তথা নামাজ,রোজা,হজ ইত্যাদি করতে বলতেন না।তাই না?
করেছেন
আচ্ছা ভাই আগে আপনি বলেন উত্তরে আমি আল্লাহর যে প্রবিত্র বাণীটা কথা উল্লেখ করেছি সেটা কি ভুল ?আবার সেই আল্লাই তো আমাদের উপর ৫ ওয়াক্ত নামাজ , রমজান মাসে রোজা ফরয করেছেন , সামর্থবানদের কে জাকাত আদায়ে নির্দেশ দিয়েছেন এবং হজ্ব আদায় করতে বলেছেন , তাই না। আল্লাহ আরেক জায়গায় বলেছেন যার নামাজের হিসাব ঠিক হয়ে যাবে তার আর কোন হিসাব নেয়া হবে না , আরেক জায়গায় বলেছেন যে যৌবনকালের হিসাব ঠিকঠাক দিতে পারবে তার কোন হিসাবেই নেয়া হবে না।কার হিসাব নেয়া লাগবে আর কার লাগবে না এটা আল্লাহ তায়ালাই ভালো জানেন। তাহলে আপনি কেন এরখম কথা নিয়ে বিরোধ করছেন ।ভাই অবিশ্বাস করলে কিন্তু ইমানহারা হয়ে যাবেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি উত্তর
1 উত্তর
16 সেপ্টেম্বর 2019 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তুহিন
নির্বিক এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।
...