নিরভিকে ডট কমে আপনাকে স্বাগতম।এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন।প্রশ্ন করতে নিবন্ধন করুন
35 বার প্রদর্শিত
"নিত্যনতুন সমস্যা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন
বিভাগ পূনঃনির্ধারিত করেছেন

এই প্রশ্নটির উত্তর দিতে দয়া করে প্রবেশ কিংবা নিবন্ধন করুন ।

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন
ভিসা কার্ড করার নিয়ম

প্রথমে আপনি সিদ্ধান্ত নিন যে আপনি কোন ধরনের ভিসা কার্ড নিতে চান। লোকাল অথবা ইন্টারন্যাশনাল। যদি আপনি লোকাল বা ডেবিট ভিসা কার্ড নিতে চান তাহলে বাংলাদেশের যেকোন ব্যাংক থেকে নিতে পারেন। তবে মার্কেন্টাইল ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, ডাচ-বাংলা ব্যাংক এবং ব্যাক ব্যাংক এক্ষেত্রে সবচেয়ে ভালো। এজন্য আপনার প্রয়োজন হবে আপনার আইডি/পাসপোর্ট/ড্রাইভিং লাইসেন্স এর ফটোকপি, কয়েককপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, নমিনির ছবি, নমিনির আইডি কার্ডের ফটোকপি। সেই সাথে ব্যাংকের নির্ধারিত নিবন্ধন ফর্ম এবং প্রারম্ভিক জমা। প্রারম্ভিক জমার পরিমান ৫০০/= থেকে ২,০০০/= হয়ে থাকে। আবেদন করার পর থেকে বিশ দিনের মধ্যে আপনি কার্ড পেয়ে যাবেন। মার্কেন্টাইল ব্যাংক ১৪ দিন সময় নেয়। আর ইন্টারন্যাশনাল বা ক্রেডিট কার্ড নিতে চাইলে সবচেয়ে ভালো হবে ব্র্যাক ব্যাংক থেকে নিলে। তবে আপনি যদি ব্যবসায়ী অথবা চাকুরিজীবি হন তবে ডাচ-বাংলা ব্যংক অথবা প্রাইম ব্যাংক থেকেও নিতে পারেন। তবে ওদের শর্তসমুহ আমার জানামতে বেশ কঠিন। অন্যদিকে ব্র্যাক ব্যাংকের শর্ত বেশ সহজ। সবচেয়ে মজার ব্যপার হচ্ছে আপনি ব্র্যাক ব্যাংক থেকে ফিক্সড ডেপোজিট এর মাধ্যমেই ক্রেডিট ভিসা বা মাস্টারকার্ড নিতে পারেন। এজন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট আগের মতোই, শুধু আপনাকে একটি নির্দিষ্ট এমাউন্ট ব্যাংকে জমা রাখতে হবে। মিনিমাম এমাউন্ট ১০,০০০/= আর আপনি চাকুরিজীবি হলে মিনিমাম মাসিক স্যালারি ২০,০০০/= এবং ব্যবসায়ী হলে মিনিমাম মাসিক ইনকাম ৩০,০০০/= হতে হবে। অবশ্য ব্যাংক ভেদে এটা কম বেশী হয়ে থাকে। আমি এই পর্বে শুধু ব্র্যাক ব্যাংকের টা উল্লেখ করেছি। ধন্যবাদ।
মন্তব্য করেছেন
ধন্যবাদ।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

নিরবিক একটি প্রশ্ন উত্তর সাইট। এটি এমন একটি প্লাটফরম যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন।আর আপনি যদি সবজান্তা হয়ে থাকেন তাহলে অন্যের প্রশ্নের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।
...