নির্বিক ডট কমে প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন,প্রশ্ন করতে রেজিস্ট্রেশন করুন
0 টি ভোট
93 বার প্রদর্শিত
"প্রাণী বিজ্ঞান" বিভাগে করেছেন (134 পয়েন্ট)

এই প্রশ্নটির উত্তর দিতে দয়া করে প্রবেশ কিংবা নিবন্ধন করুন ।

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (8,630 পয়েন্ট)
মানুষের গায়ের রং সাদা বা কালো হয় কেন? আমাদের ত্বকে তো অনেক উপাদানই থাকে। এরকমই একটি উপাদান হলো মেলানিন। মানুষের গায়ের রং সাদা বা কালো হয় মূলত ত্বকে এই মেলানিনের উপস্থিতির কারণে। মেলানিনের কম বা বেশি থাকার উপরই নির্ভর করে একজন মানুষ সাদা হবে, না কালো হবে। যার শরীরে মেলানিন যতো বেশি, সে ততো কালো। এই মেলানিন ত্বকে আল্ট্রাভায়োলেট রে বা অতি বেগুনী রশ্মির প্রভাব নিয়ন্ত্রণ করে। অতি বেগুনী রশ্মি আমাদের ত্বকে প্রবেশ করে ভিটামিন ডি তৈরি করে। আবার এই অতি বেগুনী রশ্মি যদি আমাদের ত্বকে বেশি হয়ে যায়, তাহলে কিন্তু সমস্যা, স্কিন ক্যান্সার বা ত্বকের ক্যান্সারই হয়ে যেতে পারে! এখন একটু খেয়াল করলে দেখবে, যে সব অঞ্চলে সূর্যের তাপ যতো বেশি পড়ে, সে সব অঞ্চলের লোকজন ততো কালো। আর যে সব অঞ্চলে সূর্যের তাপ যতো কম পড়ে, সে সব অঞ্চলের মানুষ ততো সাদা। কারণ, সূর্যের তাপ বেশি মানে গায়ে সূর্যের অতি বেগুনী রশ্মিও পড়ে বেশি। আর সেই বেশি পরিমাণ অতি বেগুনী রশ্মি ঠেকাতে মেলানিনও বেশি-ই প্রয়োজন হয়। আর বরফ-পড়া দেশগুলোতে ঠিক তার উল্টো, তাই ওখানকার মানুষের গায়ের রং-ও সাদা। আর তাই আফ্রিকার গনগনে আবহাওয়ায় মানুষগুলোর শরীরে মেলানিনও থাকে বেশি, গায়ের রংও কুচকুচে কালো। এখন শোনো মজার এক গল্প। ডারউইন, মানুষের বিবর্তনের যে তত্ত্ব বলেছিলেন, সেটা শোনো নি? ডারউইনের তত্ত্ব অনুসারে বাঁদর থেকে শিম্পাঞ্জী তারপর হলো মানুষ। আর মানুষ হওয়ার সময় আমাদের লেজও গেলো খসে। খেয়াল করে দেখো, যেখানে লেজ থাকার কথা, আমাদের সেই জায়গায় এখনো একটা হাড় রয়ে গেছে! তো আমরা যখন মানুষ হলাম, তখন তো আমাদের গায়ের লোমও কমতে শুরু করলো। তো শরীরে তাপরোধ করার, মানে ঐ অতিবেগুনী রশ্মি থেকে আমাদের ত্বককে রক্ষা করার তো একটা ব্যবস্থা থাকা চাই, নাকি? আগে তো ওদের লোমেই সব কাজ হয়ে যেতো। কিন্তু আমাদের গায়ে তো অমন লোমের জঙ্গল নেই। তখনই আমাদের শরীরে মেলানিনের পরিমাণ বাড়তে শুরু করলো। সে আজ থেকে প্রায় ১২ লাখ বছর আগের কথা। তখন নাকি পৃথিবীর সব মানুষের গায়ের রংই ছিলো আফ্রিকার মানুষদের মতো কুচকুচে কালো। আস্তে আস্তে মানুষ পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়তে লাগলো। আর যে যতো ঠাণ্ডা এলাকায় যেতে লাগলো, তার শরীরে ততোই মেলানিন কম দরকার হতে লাগলো; আর সে ততো সাদা হতে লাগলো। তার মানে কি দাঁড়ালো, গায়ের রং সাদা বা কালো হওয়ার মধ্যে এমন কোনো গর্বের কিছু নেই। এটা একটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। বরং আমাদের দেশে গায়ের রং বেশি সাদা হলে উল্টো সমস্যা। আমাদের দেশে তো আর কম রোদ পড়ে না! তবে তার মানে কিন্তু এটাও না যে, গায়ের রং সাদা হওয়া খারাপ। কেন, মনে নেই, এই অতিবেগুনী রশ্মি-ই তো আমাদের ত্বকে ভিটামিন ডি তৈরি করে। গায়ে মেলানিন বেশি থাকলে তো অতিবেগুনী রশ্মি বেশি করে ভিটামিন ডি তৈরিই করতে পারবে না!

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর
0 টি ভোট
2 টি উত্তর
0 টি ভোট
1 উত্তর
22 নভেম্বর 2018 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md. Khairul (539 পয়েন্ট)
নির্বিক ডট কম এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।প্রশ্ন উত্তর করতে নিবন্ধন করুন।

19,207 টি প্রশ্ন

21,027 টি উত্তর

1,546 টি মন্তব্য

4,774 জন সদস্য

...