search
প্রবেশ
নির্বিক এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।এখনই প্রশ্ন করা শুরু করুন।
3 টি ভোট
47 বার প্রদর্শিত
আমি গত দুই বছর যাবৎ অর্শ রোগে ভুগছি। এই রোগের চিকিৎসা কি?
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে

1 উত্তর

0 টি ভোট
পাইলস বা অর্শ হলো মলদ্বারে এক ধরনের রোগ যেখানে রক্তনালীগুলো বড় হয়ে গিয়ে ভাসকুলার কুশন তৈরি করে। এটি অস্বস্তিকর এবং অসহনীয় একটি সমস্যা।
অনেক করণে এ রোগ হতে পারে। যেমন- কনস্টিপেশন, ক্রনিক ডায়ারিয়া, পারিবারিক ইতিহাস, ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার কম খাওয়া, অতিরিক্ত ওজন, অ্যালার্জি, মাত্রাতিরিক্ত শরীরচর্চা, প্রেগন্যান্সি, অনেকক্ষণ ধরে পটি করার অভ্যাস প্রভৃতি। আধুনিক ওষুধ বা অপারেশনের সাহায্যে এ রোগের চিকিৎসা করা যেতে পারে।
 
তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, ঘরোয়া পদ্ধতিগুলির এক্ষত্রে দারুণ কাজে আসে। ঘরোয়া এ সহজ পদ্ধতিগুলিকে কাজে লাগিয়ে পাইলসের একাধিক লক্ষণকে নিমেষে কাবু করা যায়।
 ১.বরফ:
পাইলসের যন্ত্রণা কমানোর পাশাপাশি রক্তপাত বন্ধ করতে বরফের কোনো বিকল্প নেই বললেই চলে। এক্ষেত্রে একটা কাপড়ে কয়েকটা বরফের টুকরো নিয়ে ক্ষতস্থানে কম করে ১০ মিনিট লাগান। দিনে কয়েকবার এমনটা করলেই দেখবেন পাইলসের সমস্যা একেবারে কমে যাবে।
 
২.অ্যালোভেরা:
অ্যালোভেরায় অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি প্রপাটিজ রয়েছে। এটি পাইলসের যন্ত্রণা কমাতে দারুন কাজে আসে। অল্প করে অ্যালোভেরা জেল নিয়ে ক্ষত স্থানে ধিরে ধিরে লাগিয়ে নিন। অল্প সময় রাখলেই দেখবেন জ্বালা একেবারে কমে যাবে।
 
৩.লেবুর রস:
এই ফলের রসে বেশ কিছু উপাদান রয়েছে যা ব্লাড ভেসেলের দেয়ালকে পোক্ত করে এবং পাইলের কষ্ট কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। প্রথমে একটা লেবু থেকে রস সংগ্রহ করুন। এরপর এতে তুলা চুবিয়ে পাইলসের ওপরে লাগান। এমনটা যখনই করবেন, তখন একটু জ্বালা হবে ঠিকই। তবে কিছু সময় পরে দেখবেন যন্ত্রণা একেবারে কমে যাবে।
 
এছাড়া এক গ্লাস গরম দুধে অর্ধেক লেবুর রস মিশিয়ে পান করলেও দারুন উপকার পাওয়া যায়। পাইলসের যন্ত্রণা কমাতে দিনে ৩ বার এ পানীয় খেতে পারেন।
 
৪.বাদাম তেল:
একটা বাটিতে অল্প করে বাদাম তেল নিয়ে তাতে তুলা ডুবিয়ে পাইলসের ওপর লাগালেও উপকার পাওয়া যায়।
 
৫.অলিভ অয়েল:
প্রতিদিন এক চামুচ করে অলিভ অয়েল খেলে দারুণ উপকার পাওয়া যায়। এতে উপস্থিত অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ব্লাড ভেসেলের ইলাসট্রিসিটি বাড়িয়ে দেয়। ফলে পাইলসের জ্বালা এবং কষ্ট কমাতে শুরু করে।
 
এছাড়া ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার যেমন: দানা শস্য, বাদাম, সবজু শাকসবজি, ব্রাউন রাইস প্রভৃতি খাবার বেশি করে খেতে হবে। কারণ পাইলস সারাতে ফাইবারের কোনো বিকল্প নেই বললেই চলে।

এই প্রশ্নগুলিও দেখুন

5 টি ভোট
2 টি উত্তর
আমার ঘন ঘন স্বপ্ন দোষ হয়।আমি এ থেকে রক্ষা পেতে চাই।এখন কি করব?
14 ডিসেম্বর 2017 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা Md tushar
0 টি ভোট
1 উত্তর
–1 টি ভোট
0 টি উত্তর
শুনেছি পুরুষের পিশাব  এর সাথে বীর্য বা সিমেন বের হওয়া খুব জটিল একটা সমস্যা।এটা কি সত্যি?এই সমস্যা থেকে কিভাবে স্থায়ী মুক্তি মিলবে?আর সত্যি ই  এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব?আচ্ছা আর মনে করেন কারোর বর্তমান বয়স 15,সে পূর্বে 1-2 বছর হস্তমথুন করেছিল,তারপর হটাৎ তার ... পরে সেটা ঠিক হইয়া যায়,এখন এই অবস্থায় সে যদি হোমিও চিকিৎসা গ্রহণ করে তাহলে সে কি স্থায়ী মুক্তি পাবে এটা থেকে? kindly জানাবেন
19 সেপ্টেম্বর "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা Mustafizur Rahman
0 টি ভোট
1 উত্তর
0 টি ভোট
0 টি উত্তর
আমি ১১ বছর বয়স থেকে ১৭ বছর বয়স পর্যন্ত মোট ৭ বছর। ধরে হস্তমৈথুন করে আসছি।আমি ইন্টারনেটে পড়লাম যে যারা হস্তমৈথুন অভ্যাস ছাড়তে পারেনা।তাদেরর নাকি সহবাসে করার সময় দ্রুত বির্যপাত ঘটার সম্ভাবনা বেশি থাকে কথাটা কি সত্য ধরুন যে আমি সামনের ১৭+৭ মোট ৭ বছর এ খারাপ অভ্যাস ত্যাগ করলাম।তাহলে আমার ক্ষেত্রে ও কি দ্রুত বির্যপাত ঘটার সম্ভাবনা সৃষ্টি হবে কি
28 অক্টোবর 2018 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা Abinashray