search
প্রবেশ
নির্বিক এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করে উত্তর জেনে নিতে পারবেন এবং পাশাপাশি অন্য কারো প্রশ্নের উত্তর জানা থাকলে তাদের উত্তর দিয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।প্রশ্ন উত্তর করতে এখনই নিবন্ধন করুন।
108 বার প্রদর্শিত
"রূপচর্চা" বিভাগে

1 উত্তর

0 টি ভোট
ব্রণ দূর করার চেয়ে ব্রণের দাগ দূর করা বেশ কঠিন। প্রাকৃতিক উপাদান এবং ডাক্তারের সাহায্যে ব্রণ দূর করা যায়। কিন্তু ব্রণের এই জেদি দাগগুলো থেকেই যায়। কিছুতেই যেতে চায় না। তবে একটি প্রবাদ আছে , “নাথিং ইজ ইম্পসিবল”। অসম্ভব বলে কিছু নেই। যদিও সময় একটু বেশি লাগবে, কিন্তু নিয়মিত চেষ্টায় কিছু প্রাকৃতিক উপাদানের সহায়তায় এই দাগ ধীরে ধীরে দূর করা সম্ভব।

যাদের মুখে ব্রণ আছে, তাঁরা কোন রঙ ফর্সা করা ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন না। এসব ক্রিমে ব্রণে দাগ তো কমেই না, উল্টো আরও ব্রণের বাড়ে। তাহলে উপায়? ঈদের সময়ে কি এমনও নিষ্প্রাণ চেহারা নিয়েই থাকতে হবে আপনাকে? তাহলে জেনে নিন ২০ মিনিটে ব্রণের দাগ সহ যে কোণ দাগ কমিয়ে রঙ ফর্সা করার একটি দারুণ কার্যকরী উপায়। যাদের মুখে ব্রণ নেই, তাঁরাও এটা ব্যবহার করতে পারবেন!


 
এই পদ্ধতিতে আমরা ব্যবহার করবো দুধ ও জায়ফল গুঁড়ো। অনেকের জায়ফলে এলার্জি থাকতে পারে, তাঁরা এটা ব্যবহার করবেন না। এই প্রক্রিয়াটি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মুক্ত। নিয়মিত ব্যবহারে ভালো ফল পাবেন। এছাড়াও প্রথম ব্যবহারেই পার্থক্য নজরে পড়বে।

যা যা লাগবে :-

কাঁচা দুধ
তাজা জায়ফলের গুঁড়ো
প্রণালি :-

তাজা জায়ফলকে মিহি গুঁড়ো করে নিন। মুখে ব্রণ থাকলে অর্ধেক জায়ফল নিন। ব্রণ না থাকলে একটি পুরোটাই নিতে পারেন।
যতখানি গুঁড়ো হবে, ততখানি কাঁচা দুধ দিয়ে পেস্ট বানিয়ে নিন।
এবার এই পেস্ট মুখে মাখুন। শুধু মুখ কেন, শরীরের যে কোন অঙ্গে ব্যবহার করতে পারেন।
২০ মিনিট রাখুন, তারপর ধুয়ে ফেলুন। পার্থক্য দেখতে পাবেন নিজেই!
ভালো ফল পেতে সপ্তাহে ২/৩ বার ব্যবহার করুন

সম্পর্কিত প্রশ্ন

1 উত্তর
আমি আগে শহরে থাকতে খুব ফর্সা ও খুব সুন্দর ছিলাম কিন্তু গ্রামে এসে শ্যামলা হয়ে গেছি
15 জানুয়ারি "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা সুমন২
0 টি উত্তর
অনেক দিন যাবত ব্রণ।
26 নভেম্বর 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা Mehedi Hasan
3 টি উত্তর